বাংলা সহায়ক

ক্রন্দনরতা জননীর পাশে -- মৃদুল দাশগুপ্ত

ক্রন্দনরতা জননীর পাশে -- মৃদুল দাশগুপ্ত
মূলগ্রন্থ --"ধানক্ষেত থেকে "।

সঠিক বিকল্পটি নির্বাচন করো :

১) কবি যে জননীর পাশে দাঁড়াতে চেয়েছেন তিনি--
ক) ক্রন্দনরতা খ) স্নেহময়ী গ) সুজলা - সুফলা ঘ) জরা জীর্ণ
উত্তর :–ক্রন্দনরতা
২) ক্রন্দনরতা জননীর পাশে না থাকলে কবির অর্থহীন মনে হয়েছে
ক) লেখা লেখিকে  খ) বেঁচে থাকাকে  গ) নাগরিক হওয়াকে  ঘ) রাজনীতিকে
উত্তর :–লেখা লেখিকে
৩) নিহত ভাইয়ের শবদেহ কবির মনে জাগিয়েছিল
ক) বেদনা  খ) সহানুভূতি গ) ক্রোধ ঘ) আত্মগ্লানি
উত্তর :–ক্রোধ
৪) কবিতায় নিখোঁজ ছিন্ন ভিন্ন মেয়েটিকে পাওয়া গিয়েছিল
ক) নিজের বাড়িতে  খ) রাস্তায়  গ) জঙ্গলে শত্রু শিবিরে  ঘ) জঙ্গলে
উত্তর :–জঙ্গলে
৫) নিখোঁজ মেয়ে টিকে জঙ্গলে পাওয়া গিয়েছিল
ক) গুলিবিদ্ধ অবস্থায়  খ) রক্তাক্ত অবস্থায  গ) ছিন্ন ভিন্ন অবস্থায়  ঘ) অচৈতন্য অবস্থায়
উত্তর :–ছিন্ন ভিন্ন অবস্থায়
৬) ছিন্নভিন্ন মেয়ে টিকে দেখে কবি তাকাতে চান না
ক) পৃথিবীর দিকে  খ) সমাজের দিকে  গ) জঙ্গলের দিকে  ঘ) আকাশের দিকে
উত্তর :–আকাশের দিকে
৭) কবিতায় জেগে উঠে
ক) কবির বিবেক  খ) কবির কল্পনা  গ) কবির প্রশ্ন  ঘ) কবির আকুতি
উত্তর :– কবির বিবেক
৮) নিজের বিবেক কে কবি যার সঙ্গে তুলনা করেছেন , তা হল
ক) ঝড়  খ) বারুদ  গ) বিদ্যুৎ  ঘ) আলো
উত্তর :–বারুদ
৯) " বিবেক " বলতে বোঝানো হয়েছে
ক) অন্তআত্মাকে খ) চিন্তা ধারাকে  গ) বোধকে  ঘ) মানসিকতাকে
উত্তর :–অন্তআত্মাকে
১০) ক্রন্দনরতা জননী হলেন
ক) কবির মা  খ) শহীদের মা  গ) কবির সর্বদেশ  ঘ) যে - কোনো নারী
উত্তর :–কবির সর্বদেশ
১১) কবি যার পাশে থাকতে চেয়েছেন
ক) দরিদ্র মানুষের  খ) ক্রন্দনরতা জননীর  গ) শহরের পাশে  ঘ) সমস্ত পৃথিবীবাসীর
উত্তর :–ক্রন্দনরতা জননীর
১২) " আমি তা পারিনা "। যা না পারার কথা বলা হয়েছে
ক) বিধির মুখাপেক্ষী হয়ে থাকা  খ) নিজের সুখ সন্ধান  গ) প্রতিবাদ বিমুখ হয়ে থাকা  ঘ) কবিতা লেখা
উত্তর :–বিধির মুখাপেক্ষী হয়ে থাকা
১৩) কি জেগে উঠে ' বিস্ফোরনের আগে '। ?
ক) আগ্নেয় গিরি  খ) কবির বিবেক  গ) জনগন  ঘ) প্রতিবাদী আন্দোলন
উত্তর :–কবির বিবেক

 
সংক্ষিপ্ত উত্তরভিত্তিক প্রশ্নাবলি :

১. আমি তা পারি না”- কে, কী পারেন না ?
উত্তর : প্রতিবাদী কবি মৃদুল দাশগুপ্ত 'ক্রন্দনরতা’ জননীর পাশে কবিতায় ছিন্নভিন্ন, নিখোঁজ মেয়েটিকে জঙ্গলে পেয়ে আকাশের দিকে তাকিয়ে বিধির কাছে বিচার চাইতে পারেন না।
২. “যা পারি কেবল”- কে, কী পারেন?
উত্তর :  কবি মৃদুল দাশগুপ্ত। তিনি যা পারেন তা হলো অন্যায়-অবিচার, অত্যাচার-নিপীড়ন সবকিছুর বিরুদ্ধে তাঁর ক্ষোভ ও প্রতিবাদ বিস্ফোরণের বারুদের মতো অন্তর্নিহিত রাখতে।
৩.  “কেন ভালোবাসা, কেন-বা সমাজকীসের মূল্যবোধ!” কোন মানসিক যন্ত্রণা থেকে কবি এ কথা বলেছেন?
উত্তর :  নিহত ভাইয়ের শবদেহ দেখে প্রতিবাদ জানাতে না পারার ক্ৰোধ কবির মানসিক যন্ত্রণার কারণ। ওই মানসিক যন্ত্রণার ফলে কবির এই উক্তি।
৪. “সে-ই কবিতায় জাগে আমার বিবেক” – 'বিবেক’কে কীসের সঙ্গে তুলনা করা হয়েছে?
উত্তর : কবি যুদ্ধ ও প্রতিবাদী বিবেককে বিস্ফোরণের আগে সঞ্জিত বারুদের সঙ্গে তুলনা করেছেন।
৫. “কেন তবে লেখা, কেন গান গাওয়া”- কবির এমন উক্তির কারণ কী ?
উত্তর :  কবি-শিল্পীরা ক্রন্দনরতা জননীর পাশে না দাঁড়ালে তাদের গান গাওয়া, লেখালেখি বৃথা, একথা বলার জন্যই কবি আলোচ্য উক্তিটি করেছেন।
৬. “আমি কি তাকাব আকাশের দিকে”– একথা বলার কারণ কী?
উত্তর : প্রতিবাদী কবি মৃদুল দাশগুপ্ত নিখোঁজ, ছিন্নভিন্ন জঙ্গলে পাওয়া মেয়েটির পাশে না দাঁড়িয়ে তাকে উপেক্ষা করে বিচার চাওয়ার জন্য আকাশের দিকে তাকাতে পারেন, এপ্রসঙ্গেই উক্তিটি করেছেন।
৭. . ক্রন্দনরতা জননীর পাশে না থাকলে কবি কী কী ব্যর্থ বলে মনে করেছেন?
উত্তর :  ক্রন্দনরতা জননীর পাশে না থাকলে কবি মনে করেন তার লেখাজোখা, গান গাওয়া ও আঁকাআঁকি সবই ব্যর্থ।

রচনাধর্মী প্রশ্নোত্তর :
           

৪. 'ক্রন্দনরতা জননীর পাশে’ – কবিতায় কবি জননীকে ‘ক্রন্দনরতা’ বলেছেন  কেন   ? এই পরিস্থিতিতে কবি কী করা উচিত বলে মনে করেছেন?

৫. "সেই কবিতায় জাগে "-কবি কার কথা বলছেন? কবিতাটির বিষয়বস্তু উল্লেখ করে কবির এমন কথা বলার কারণ ব্যাখ্যা করো।  

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

1 মন্তব্যসমূহ